“ঈদুল আযহা আমাদেরকে ত্যাগ ও কুরবানীর আদর্শে উজ্জীবিত করে”

0
0
আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।

ভোলা সদর ।
পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে দেশবাসীকে ভারপ্রাপ্ত আমীরে জামায়াতের শুভেচ্ছা
– অধ্যাপক মুজিবুর রহমান

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে ২৬ জুন ২০২৩ নিম্নোক্ত বিবৃতি প্রদান করেছেনঃ-

“হযরত ইব্রাহিম (আ:) ও তাঁর স্ত্রী বিবি হাজেরা এবং তাদের প্রিয় পুত্র হযরত ইসমাইল (আঃ) এর স্মৃতি বিজড়িত পবিত্র ঈদুল আযহা আমাদের সামনে সমাগত। ঈদুল আযহা আমাদেরকে ত্যাগ ও কুরবানীর আদর্শে উজ্জীবিত করে। মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য আল্লাহর উদ্দেশে সবকিছু ত্যাগ করে দেয়ার চেতনা আমাদের মনে জাগ্রত করে। সামাজিক বৈষম্য দূরীকরণ, শোষণমুক্ত ও ইনসাফ ভিত্তিক একটি ইসলামী সমাজ প্রতিষ্ঠায় কুরবানী আমাদেরকে অনুপ্রেরণা দেয়। ত্যাগ ও কুরবানীর মানসিকতা নিয়ে ব্যক্তিগত, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে ন্যায় এবং ইনসাফ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ইসলামকে পরিপূর্ণভাবে অনুসরণ করতে হবে।

আমরা এমন এক সময় পবিত্র ঈদুল আযহা উদযাপন করতে যাচ্ছি যখন দেশে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক, নৈতিক নানা সংকট বিরাজ করছে। দেশে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে। ঘুষ, দুর্নীতি, হত্যা, গুম, খুন, সন্ত্রাস, ধর্ষণ, চাঁদাবাজি ইত্যাদি সমাজ জীবনকে অতিষ্ট করে তুলছে। চাল, আটা, তেল, ডাল, গোশত, মাছ, তরিতরকারী ও চিনি, মসলাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম অস্বাভাবিকভাবে হু-হু করে বেড়েই চলেছে। এমতাবস্থায় যেখানে মানুষ দু’বেলা দু’মুঠো ভাত পেট ভরে খেতে পায় না, সেখানে মানুষ কী করে ঈদুল আযহার আনন্দ উপভোগ করতে পারে? দেশের হতদরিদ্র, নিম্ন মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষ বড়ই কষ্টে দিন যাপন করছে। এ সব কিছু দেখেও সরকার না দেখার ভান করছে।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে অনুষ্ঠানের ব্যাপারে সরকার ও বিরোধীদল মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। সরকারের একগুঁয়েমী ও জোর করে ক্ষমতায় আঁকড়ে থেকে একতরফা ব্যালট ডাকাতির নির্বাচন করার পরিকল্পনার কারণে দেশ সংঘাতের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থা থেকে আল্লাহ তা’য়ালা আমাদেরকে উদ্ধার করুন এবং শান্তিপূর্ণভাবে সকল সমস্যার সমাধান করুন এ কামনাই করছি।

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে আমরা হযরত ইব্রাহিম (আ:) এবং তার স্ত্রী বিবি হাজেরা ও তাদের পুত্র হযরত ইসমাইল (আ:) এর মহান ত্যাগের ইতিহাস গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি। তাদের সে ত্যাগের কথা স্মরণ করে আমরাও যদি আল্লাহর এ জমিনে আল্লাহর দ্বীন কায়েমের জন্য নিজের জান, মাল ও প্রিয় বস্তুকে আল্লাহর রাস্তায় কুরবানী করার জন্য তৈরী হতে পারি তাহলেই আমাদের যাবতীয় ত্যাগ ও কুরবানী আল্লাহর নিকট কবুল হবে এবং আমাদের সকল কুরবানী স্বার্থক ও সফল হবে।

তাই পবিত্র ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে সমস্যায় জর্জরিত দেশবাসীর সুখ-শান্তি, সমৃদ্ধি, সুস্বাস্থ্য ও নিরাপদ জীবনের জন্য আল্লাহর নিকট কায়মনোবাক্যে দোয়া করছি এবং দেশবাসী সবাইকে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে আমার নিজের পক্ষে থেকে এবং বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর পক্ষে থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।”

আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।