ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে বি এন পির প্রতিবাদ সভায় আওয়ামী লীগের হামলা

0
8
আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।

আব্দুর রাজ্জাক বাপ্পী, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্রের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচি অনুযায়ী এক প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে জেলা বিএনপি। এই কর্মসূচিতে হামলা ও সভাস্থল ভাঙচুর করার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, কৃষক লীগ ও তাঁতী লীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে। এতে বিএনপির অর্ধ শতাধিক নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। দলীয় কার্যালয়ে ঘণ্টাব্যাপী অবরুদ্ধ ছিলেন জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতারা।
বুধবার বিকেলে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচিতে নেতা-কর্মীদের বক্তব্য দেওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বালিয়াডাঙ্গী চৌরাস্তায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করতে দেখা যায় । এদিকে নেতা-কর্মীদের অবরুদ্ধ রেখে আওয়ামী লীগ তার সহযোগী সংগঠনগুলো পাল্টা বিক্ষোভ মিছিল করে বলে জানান স্থানীয়রা।
প্রত্যক্ষ দর্শীরা জানান, দলীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিকেল ৩ টায় পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বিএনপির ডাক দেওয়া বিক্ষোভ মিছিল হয় চৌরাস্তায়। এরপরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সভায় বক্তব্য প্রদান শুরু করেন নেতা-কর্মীরা। অভিযোগ উঠেছে, সভায় স্থানীয় এমপিকে কটাক্ষ করে বক্তব্য দিলে হামলা চালায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।
এ বিষয়ে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জানান, ‘শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির শেষ পর্যায়ে আওয়ামী লীগ ও পুলিশ যৌথভাবে আমাদের ওপর হামলা চালায় এবং ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে আমরা দলীয় কার্যালয়ের ভেতর অবস্থান নিলে বাইরে সভাস্থল ভাঙচুর করে। আমরা জেলা বি এন পির শীর্ষ নেতা-কর্মীরাসহ প্রায় ২ ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ ছিলাম। দলীয় কার্যালয়ের ভেতরে দরজা ভেঙ্গে আমাদের হামলা করার কয়েক বার চেষ্টা করা হয়েছে।
এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী থানার অফিসার ইনচার্জ খায়রুল আনাম ডন বলেন, বিএনপির উস্কানিমূলক বক্তব্যে প্রদানের সময় আওয়ামী লীগ ও তাঁদের লোকজন হামলা চালায়। পুলিশের সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে। পরে পরিবেশ শান্ত হলে দলীয় কার্যালয়ের ভেতর অবরুদ্ধ থাকা বিএনপির নেতা-কর্মীদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁওয়ে পাঠিয়ে দেয় পুলিশ সদস্যরা।
আগামীকাল বৃহস্পতিবার জেলা বিএনপি কার্যালয়ে দুপুর ১২ টায় হামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান জেলা বিএনপি নেতৃবৃন্দ।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।