ফরিদপুরে মুসলিম শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে ভোলায় প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিল

0
5
আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।

আশিকুর রহমান শান্ত
ভোলা প্রতিনিধি

ফরিদপুরের মধুখালিতে দুই মুসলিম শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে এবং দোষীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে ভোলায় প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্টিত হয়েছে।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) দুপুর আড়াইটায় ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদের আয়োজনে ভোলা কালিনাথ রায়ের বাজার হাটখোলা জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে এ প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মুসলিম ঐক্য পরিষদের এর সভাপতি মাওলানা আব্দুর রহমান খান তালুকদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদের সহ সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মুফতী ইয়াছিন নবীপুরী। ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদের সাধারন সম্পাদক ও বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদাররেছীনের সম্পাদক এবং ভোলা দারুল হাদিস কামিল (স্নাতকোত্তর) মাদরাসার উপাধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা মোহাম্মদ মোবাশ্বিরুল হক নাঈম। দৈনিক আজকের ভোলা সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ শওকাত হোসেন। ইসলামি আন্দোলন ভোলা জেলা সভাপতি ও ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজী। সহ-সভাপতি ও ভোলা ঈদগাহ মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মুফতি আহাম্মদ উল্লাহ। ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক ও মুখপাত্র মাওলানা মুহাঃ মিজানুর রহমান। ভোলা জেলা ঈমান আকিদা সংরক্ষণ কমিটির সভাপতি ও খলিফাপট্রি জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মাওলানা মোঃ মুজির উদ্দিন। ভোলা জেলা জাতীয় ইমাম সমিতির সভাপতি ও মুসলিম ঐক্য পরিষদের জেলা সহ সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মীর মোঃ বেলায়েত হোসেন। ভোলা জেলা জাতীয় ইমাম সমিতির সম্পাদক ও মুসলিম ঐক্য পরিষদের সদস্য মাওলানা আব্বাছ উদ্দিন।

এ ছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন ভোলা দারুল হাদিস কামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা আমিনুল হক নোমানী। ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদের উপদেষ্টা মাওলানা আবুজাফর আব্দুল্লাহ। ভোলা জেলা কাওমি ছাত্র ঐক্য পরিষদের সভাপতি মাওলানা জিয়াউর রহমান ফারুকীর প্রমূখ।

উল্লেখ্য গত ১৮ এপ্রিল ফরিদপুরের মধুখালিতে হিন্দু অধ্যুষিত পঞ্চপল্লীর গ্রামের কালি মন্দিরে রহস্যজনক অগ্নিকান্ডের ঘটনাকে কেন্দ্র করে মিথ্যা অভিযোগ তুলে গুজব ছড়িয়ে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্মান শ্রমিক হিসেবে কর্মরত কোরআনে হাফেজ দুই কিশোর সহোদর ভাইকে কোন সাক্ষ্য প্রমান ছাড়াই ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা নিশ্চিত করে উল্লাস করে উগ্র হিন্দুত্ববাদিরা। এ ঘটনায় অন্তত ৫ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় পুলিশ উদ্ধার করে। https://youtu.be/3KICcMw7TzY?si=d4mIYdbVqnnvhHis

প্রতিবাদ সমাবেশ বক্তাগন বলেন, মধুখালিতে সংখ্যালঘুদের হাতে দুই হাফেজ ভাইয়ের মর্মান্তিক মৃত্যু কেউ মেনে নিতে পারছেনা। হত্যায় জড়িত ব্যাক্তিদের সম্পর্কে গণমাধ্যমে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার এক সপ্তাহ পেরিয়ে যাওয়ার পরও অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে সংঘাত-সহিংসতা প্রশমনের বদলে বিক্ষোভ দমনে শক্তি প্রয়োগ কখনোই সুফল বয়ে আনবেনা। ভারতীয় হিন্দুত্ববাদী সাম্প্রদায়িক রাজনীতির ফাঁদে পা দিয়ে বাংলাদেশের হিন্দুদের সম্প্রীতি বিনষ্টের কোন অপচেষ্টায় জড়িত হওয়া উচিত হবেনা। মুসলমানদের সতর্ক ও সাবধান থাকতে হবে। যেকোন মূল্যে দেশের ঐতিহাসিক সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সুরক্ষা করতে হবে। হত্যাকান্ডটি যে পরিকল্পিত ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত তা স্পষ্ট। সমাবেশ থেকে বক্তারা দাবি করেন হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দ্রুত দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ফাঁসি নিশ্চিত করতে হবে। এবং নিহত ও আহতদের পরিবারকে উপযুক্ত ক্ষতি পুরন দিতে হবে। এ ঘটনার বিচারের নিশ্চিয়তা না পাওয়া পর্যন্ত আমরা ঘরে ফিরে যাব না।

প্রতিবাদ সভা শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে বাংলা স্কুল মোড়ে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রেখে বিক্ষোভ মিছিল শেষ করে।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।