বোরহানউদ্দিনে অগ্নিকান্ডে ৭০ লাখ টাকার মালামালসহ দোকান পুড়ে ছাঁই,

0
15
আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।

রিয়াজ ফরাজী (বোরহানউদ্দিন)

আজ বুধবার (৩১ আগস্ট) ভোর ৫ টার দিকে ভোলার বোরহানউদ্দিন কুঞ্জেরহাট বাজার পশ্চিম সাহা রোডের টলঘর সংলগ্ন মনিরের পাইকারি মুদি দোকানে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্ৰণে আনতে সক্ষম হলেও অগ্নিকান্ডে মনিরের দোকানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বাতাসে এখনো ভেসে বেড়াচ্ছে পোড়া গন্ধ। ফজরের নামাজের পরপরই ভয়াবহ এ অগ্নিকাণ্ডে দিশেহারা ও আতঙ্কগ্রস্থ হয়ে পড়েন কুঞ্জের হাট বাজারের ব্যবসায়ী ও আশেপাশের সকলে।
এসময় সাহায্যের জন্য ছুটে আসেন বাজার কমিটির নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় লোকজন, রাজনৈতিক নেতৃবন্দ, ইউপি চেয়ারম্যান,স্থানীয় সাংবাদিকগন সহ
অসংখ্য মানুষ।

অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এবং বাজার কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুর রব কাজী বলেন, বৈদ্যুতিক শর্ট-সার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। তাৎক্ষণিকভাবে ফায়ার সার্ভিস এবং বাজার ব্যবসায়ী স্থানীয় লোকজন সহ আমরা আগুন নেভাতে সক্ষম হই। তিনি বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমত ও সবার সহযোগিতা থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রণ সম্ভব হয়েছে, অন্যথায় আগুন ভয়াবহ রূপ ধারণ করে বাজারের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারতো।

বোরহানউদ্দিন ফায়ার সার্ভিস সুত্র জানায়, বৈদ্যুতিক সর্টসার্কিট থেকেই অগ্নিকান্ডের সুত্রপাত।

এ বিষয়ে সর্বশান্ত মনির বলেন, দোকানের নীচতলা ও দোতালার গুদামঘরে প্রায় ৭০ লাখ টাকার মুদি মালামাল ছিল। পাইকারি দোকান হওয়া মুদির সকল নিত্যপণ্য মজুত থাকতো। তিনি কান্নাজড়িত কন্ঠে আরো বলেন, আমার দোকানের সবকিছু নিমিষে পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে। আমি এখন সর্বশ্বান্ত ও নিঃস্বপ্রায়।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।