বোরহানউদ্দিন সাচরা ইউনিয়নে জোরপূর্বক ভুমি দখল ও ঘর ভাংচুর

0
4
আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।

রিয়াজ ফরাজী -বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধি!!

ভোলার বোরহানউদ্দিন ২ নং সাচরা ৭ নং ওয়ার্ডে জোরপূর্বক ভুমি দখল ও ঘর ভাংচুর করেন মোস্তাক মোল্লা গং রা।
এতে বিগত ৪০ বছর ধরে এ ঘরে দোকান পাট করে আসছে আঃ মান্নান মোল্লা(৬৭)।

আমি এই জমি ক্রয় সুএে ৬ শতংশ মালিক। যাহার – এসএ-৩৮৬ খতিয়ানের এসএ- দাগ ৬১৬ বিএস- খতিয়ান নং১৫৪৩,BS দাগ ৫৬৫ পুকুর পাহারসহ রাস্তার সাইডে দোকান ঘর আমি ভোগ দখল করে আসছি।

আজ হঠাৎ আমার দোকান ভিটা, মোস্তাক মোল্লা (৪৫) পিতা আলহাজ্ব মজিবল ইসলাম মোল্লা জোরপূর্বক উচ্ছেদ করে দেয়। আমি বাধা প্রদান করলে আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

আজ ১১ সেপ্টেম্বর রোজ শনিবার সরেজমিনে গেলে স্থানীয় বাজার প্রত্যেকদশিরা জানান আমাদেরকে, বিগত দের বছর আগে জেলা পরিষদ এই বাজারটি সার্ভে করতে আসলে আঃ মান্নান মোল্লা ও তার দুই ছেলে শামিম ও শাহিন এই জমির প্রকৃত মালিক বলে জানান।

আঃ মান্নান মোল্লার ছেলে শামিম জানায়- আমাদেরকে তারা
১।মোস্তাক মোল্লা ( ৪৫) পিতা আলহাজ্ব মজিবল ইসলাম মোল্লা,
২।রুহুল আমিন মোল্লা (৬০) পিতা মৃত সামসল ইসলাম মোল্লা,
৩।মোসাদ্দেক মোল্লা (৫০) পিতা মজিবল ইসলাম মোল্লা,
৪।ফজলে রাব্বী (২৬), পিতা মফিজ মোল্লা,
৫।ছিদ্দিক মোল্লা (৬৫) পিতা মজিবল ইসলাম মোল্লা,
৬।আনারুল্লা( সান্টু মোল্লা)৫৩ পিতা মৃত মজিবল ইসলাম মোল্লা, নানা ভাবে ভয় ভীতি দেখায় এবং অনেক সময় মেরে ফেলার হুমকি ও দেয়।

আঃ মান্নান মোল্লার ছেলে শামিম মোল্লার সাথে আলাপ কালে শামিম মোল্লা বুক ভরা কষ্ট নিয়ে বলেন আমি শৈশব কাল থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ছাএ রাজনীতির থেকে শুরু করে বর্তমানে সাচরা ইউনিয়নের আওয়ামী যুব লীগের ১ নং সাধারন সম্পাদক দায়িত্ব পালন করে আসছি। আমি আওয়ামী লীগের সাথে যুক্ত থেকেও বি এন পির ক্যাডার বাহিনী দ্বারা লাঞ্ছিত।

মোস্তাক মোল্লার সাথে আলাপ কালে তিনি বলেন –এই জমি আমার বাবার, তাই আমিএই জমি দখল করি।
এদিকে সাচরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মহিবুল্লাহ মিয়ার সাথে আলাপ কালে তিনি আমাদের কে জানান এই জমির প্রকৃত মালিক আমি জানি আঃ মান্নান মোল্লা, বিগত কয়েক বছর ধরে ভোগ দখল করে আসছে।আমি আগামী কাল সকালে ঘটনাস্হলে যাবো বলে জানান।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।