ভোলার কুকরী-মুকরীতে আটকা পড়েছে অর্ধশতাধিক পর্যটক

0
8
আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।

ভোলা প্রতিনিধি.
দেশের অন্যতম পর্যটন স্পর্ট ভোলার কুকরী-মুকরিতে বেড়াতে গিয়ে বৈরী আবহাওয়ার কবলে পড়ে আটকা পড়েছে অর্ধশতাধিক পর্যটক।
শনিবার রাত থেকে হঠাৎ করে আবহাওয়া বিরূপ হয়ে পড়ে। রোববার দুপুরে আরো ভয়াবহ আকার ধারণ করায় নদী উত্তাল হয়ে পড়ে। উত্তাল মেঘনায় ঝড়ের কবলে পড়ে ট্রলার একটি ডুবে মারা যায় চর পাতিলার ৩ বছরের শিশু জুনায়েদ।
নিখোঁজ রয়েছে শিশুটির মা বিলকিস বেগম ও ট্রলারের মাঝি স্বপন।
এতে নৌ চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যায়। ফলে পর্যটকরা নদী পাড়ি দিয়ে ভোলার মূল ভূ-খণ্ডে আসতে পারছে না।
পর্যটনের জন্য প্রচারাভিযান ভোলার সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নজরুল হক অনু নেতৃত্বাধীন ১৫ সদস্যের একটি পর্যটক দল গত দুই দিন ধরে কুকরি রেস্ট হাউসে আটকা পড়ে আছে। এই বিষয়ে তার সঙ্গে আলাপ করলে তিনি বলেন, আমার সঙ্গে শিশু এবং নারী রয়েছে।দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার মধ্যে তাদের নিয়ে নৌ পথে বের হওয়া সম্ভব হচ্ছে না। কখন পরিস্থিতির উন্নতি হবে তাও বোঝা যাচ্ছে না।এ ছাড়া দূর দূরান্ত থেকে আসা অন্তত ৬০ জন পর্যটক আটকা পড়েছে এখানে।
ঢাকা থেকে ঘুরতে আসা দম্পতি শামীম আজাদ, সোনামনি ও তাদের ৬ বছরের কন্যা আলভিনাসহ তারা কোস্টাল ফরেস্ট ডেভলপমেন্ট রেস্ট হাউজে আটকে আছেন।
কুকরী-মুকরী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান্যান হাসেম মহাজন জানান,বৈরী আবহাওয়ার কারণে যেসব পর্যটক ঘুরতে গিয়ে আটকা আছে তাদের খোজ -খবর নিচ্ছেন। তাদের সার্বিক সহযোগিতায় করছেন তিনি।
চরফ্যাশন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল নোমান জানান,সবচাইতে নিরাপদ রেস্টহাউজ ওইখানে আছে। কোন সমস্যা হওয়ার কথা নয়।সার্বক্ষণিক তাদের সাথে যোগাযোগ থাকবে। তাদেরকে আনার ব্যবস্থাও করা হবে।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।