ভোলা দৌলতখানের মেদুয়া ইউনিয়নে নির্বাচনের পরবর্তী সমেয়ও থেমে নেই সহিংসতা

0
9
আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।

ভোলা প্রতিনিধি!
নির্বাচনের পরবর্তী সময়েও থেমে নেই ভোলার দৌলতখান উপজেলার মেদুয়া ইউনিয়নে নির্বাচনের সহিংসতা। নির্বাচনের শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ পরেই নবনির্বাচিত মেম্বার মাকসুদের কর্মীদের বাড়ি ঘরে হামলা চালায় বলে অভিযোগ ওঠে সাবেক মেম্বার বেলায়েত হোসেনের বিরুদ্ধে। জানা যায়,১১ নভেম্বর নির্বাচন শেষ হওয়ার পর ৪ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার ও বর্তমান পরাজিত প্রার্থী বেলায়েত হোসেনের কর্মী জাবেদ, মি’রাজ, শরীফ, সোহেল ,পারভেজ, হানিফ ,ফারুক পাটোয়ারী সহ তাদের দলবল নিয়ে উক্ত ওয়ার্ডের বিজয়ী প্রার্থী মাকসুদ মেম্বারের কর্মী আমজাদ হোসেন, ইউসুফ,লাইজু, নাহার বেগমসহ একাধিক ব্যক্তির বাড়িঘর ভাংচুর ও দোকানে নির্বাচন শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ পরে হামলা করেন এতে অনেকে আহত হন।এতেই থেমে থাকেনি তারা আজ শুক্রবার (১২ নভেম্বর) সকালে ১১:০০ টায় উক্ত বিজয়ী প্রার্থীর কর্মী আমির হোসেনকে পরাজিত প্রার্থীর বাড়ির সামনে দিয়ে আসার সময় জাবেদ, শাহাবুদ্দিন , টুনু মাঝির নেতৃত্বে অতর্কিত হামলা করেন অতিরিক্ত মারধরের ফলে উক্ত আমির হোসেন আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।
অভিযুক্ত নাহার বেগম জানান,নির্বাচন শেষ হওয়ার পর বিকেল পাঁচটার দিকে বেলায়েত হোসেনের কর্মী জাবেদ, মি’রাজ ,শরীফসহ একাধিক ব্যক্তিরা লাঠিসোটা নিয়ে এসে আমাদের বাড়ির উপরে হামলা শুরু করেন আমি ডাক চিৎকার দিলে তারা বলেন তারা আমাকে খুন করে ফেলবে এবং আমরা কেন মাসুদ মেম্বার কে ভোট দিয়েছি এই অপরাধে সে আমাদেরকে এর চাইতে বেশি শাস্তি দিবে। আহত আমির হোসেন জানান,আমি মাসুদ মেম্বারের নির্বাচন করাতে বেলায়েত হোসেনের সন্ত্রাসী বাহিনীরা আমাকে কাল থেকে খুঁজে না পেয়ে আজ তাদের বাড়ির সামনে দিয়ে আসার সময় আমার উপর অতর্কিত হামলা করেন। এদিকে পরাজিত প্রার্থীর ছেলে আক্তার হোসেনের কাছে ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে । তিনি বলেন যারা মারধোর করছে তাদের সাথে কথা বলেন আমরা কাউকে মারধর করতে বলিনি। এবিষয়ে নবনির্বাচিত মেম্বার মাকসুদ জানায়,ভোটে পরাজিত হয়ে আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বেলায়েত হোসেন তার কর্মীদেরকে দিয়ে আমার কর্মীদের বাড়ি ঘর ভাংচুর করেছে এবং আজকেও আমার এক কর্মীকে মারধর করেছে। তিনি আরো জানায় আমি আমরা এম,পি মহাদয়ের সাথে কথা বলে এব্যাপারে আইগত ব্যবস্তা নেবো।স্থানীয়রা বলেন,ভোটে হার জিত থাকবে সেজন্য কেউ কারও উপর হামলা করতে পারে না আমরা উক্ত ঘটনার সঠিক বিচারের দাবী জানাই।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।