শ্রমিকদের সকল সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করেছে আওয়ামী লীগ সরকার -রমেশ চন্দ্র সেন

0
7
আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।

আব্দুর রাজ্জাক বাপ্পী, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্ট মন্ডলীর সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক মন্ত্রী রমেশ চন্দ্র সেন বলেছেন, বিএনপি সরকার ক্ষমতায় থাকাকালিন নির্যাতন, নিপীড়ন করে শ্রমিকদের সর্বশান্ত করেছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আশার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়নের পাশাপাশি শ্রমিকদের সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করেছে।

মঙ্গলবার দুপুরে ঠাকুরগাঁওয়ের জেলা পরিষদ অডিটোরিয়াম হলরুমে আয়োজিত জেলা শ্রমিক লীগ ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অথিতির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন বলেন, আমাদের দেশের সকল শ্রমিকরা রাষ্ট্রের উন্নয়নের চালিকা শক্তি। শ্রমিক আছেই বলেই চাক্কা ঘুরছে। শ্রমিকদের ঘাম ঝড়া শ্রমে দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে। এ কারণে যারা আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িত দেশের মানুষ তাঁদের সম্মান করে। বিএনপির জন্ম হয়েছে হত্যকান্ডের মধ্য দিয়ে। তারা দেশ ও দেশের মানুষের ক্ষতি করে সবসময় । ফলে দেশের মানুষ বিএনপিকে ক্ষমতায় আর চায় না।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন।

এর আগে সকালে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জাতীয় শ্রমিক লীহ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর কুতুব আলম মান্নান।

জাতীয় শ্রমিক লীগ ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার সভাপতি খয়রুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন, কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ কে.এম আযম খসরু, ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ সাদেক কুরাইশী, সাধারণ সম্পাদক দীপক কুমার রায়, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ.স.ম অ্যাড গোলাম ফারুক রুবেল, অ্যাডভোকেট মোস্তাক আলম টুলু, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম স্বপন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড.অরুনাংশু দত্ত টিটো, সাধারণ সম্পাদক মোশারুল ইসলাম সরকার, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ দত্ত সমির প্রমূখ।

আলোচনা শেষে পূর্বের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের নেতারা। পরে দ্বিতীয় অধিবেশনে সকলের সম্মতিক্রমে জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি হিসেবে খয়রুল আলম, সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আনোয়ারুল হকের নাম ঘোষণা করেন সংসদ সদস্য সাবেক মন্ত্রী রমেশ চন্দ্র সেন। এছাড়াও আগামী এক মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার জন্য জেলা কমিটির নির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে নির্দেশ দেন কেন্দ্রীয় কমিটি।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।