0
21
আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।

ভোলা প্রতিনিধি।।
জেলা আওয়ামী লীগের সমাবেশে যাওয়ার পথে ইউনিয়ন কৃষকলীগ নেতা মোঃ শাহে আলম (৩০) উপর হামলার অভিযোগ ইউপি সদস্য মোঃ জসিম খালাসির বিরুদ্ধে।
শনিবার (০৪ জুন) সকালে ভোলা সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশ ইউনিয়নের বান্দের পাড় এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহত মোঃ শাহে আলম পশ্চিম ইলিশ ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং চরপক্ষীয়া গ্রামের মাঝি বাড়ির মোঃ নুরে আলম মিয়ার ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি এবং বিএনপি’র নৈরাজ্য ও সন্ত্রাসী কর্মকা-ের প্রতিবাদে জেলা আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ সমাবেশে ও প্রতিবাদ সভায় যোগদানের উদ্দেশ্য পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়ন থেকে কৃষক লীগের নেতাকর্মীদের জেলা আওয়ামী কার্যালয়ে পাঠায় ওই ইউনিয়ন কৃষক লীগ সাধারন সম্পাদক মোঃ শাহে আলম। নেতাকর্মীদের পাঠিয়ে অন্য গাড়িতে করে ইউনিয়নের বান্দের পাড় এলাকায় আসলে ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ জসিম বিএনপি’র লোকজন নিয়ে শাহে আলম উপর হঠাৎ লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালায়। এতে কৃষক লীগ নেতা মোঃশাহে আলম গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা চিকিৎসার জন্য তাকে ভোলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তিনি ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন।
আহত কৃষক লীগ নেতা মোঃ শাহে আলমের স্বজনরা বলেন, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সময় আমাদের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি ফারুক মেম্বার নির্বাচন করছে। ওনি দলিয় বিদায় আমরা নির্বাচনের সময় ফারুক মেম্বারের সমর্থন করছি। তখন তার প্রতিদন্ধী ছিলো বিএনপি’র মোঃ জসিম। তখন জসিম আমাকে তার নির্বাচন করতে বলেছিলো কিন্তু আমি দলিয় লোক ছেড়ে যাইনি। এ ঘটনার পর থেকে ইউপি সদস্য জসিম আমাদের উপর ক্ষিপ্ত এবং আমাদেরকে মারার জন্য খুজতেছিলো। আজকে সকালে শাহে আলম ভোলা জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত দলিয় প্রোগামে অংশগ্রহণের জন্য বান্দের পাড় এলাকায় আসলে জসিম পাশের এক দোকান থেকে গালাগাল দিয়ে লোকজন নিয়ে দৌড়ে এসে লাঠিসোঁটা দিয়ে শাহে আলমকে মারতে থাকে। পরে স্থানীয়রা শাহে আলমকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।
এ বিষয়ে ভোলা সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান।
অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মো: জসিম খালাসির সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তাকে খুজে পাওয়া যায়নি।
ভোলা সদর মডেল থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনায়েত হোসেন জানান, পশ্চিম ইলিশ ইউনিয়ন বান্দের পাড় এলাকায় কৃষক লীগ নেতা মোঃ শাহে আলমের উপর হামলার ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার তদন্তের জন্য ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ এ লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।